সেই ২০০৬ সালের শেষের দিকের কথা। আমি তখন ক্লাস এইটে পড়ি। নিজে কাজ করে টাকা আয় করার হাতেখড়িটা তখনই হয়। তখন ছিল Windows XP যুগ । ইন্টারনেট হাতের নাগালে ছিল না মোটেও। একটা দুইটা কম্পিউটারের দোকানে ইন্টারনেট আছে বাজারে, তবে অনেক টাকা লাগে। একটা  একটা ৩-৪মেগাবাইটের গান ডাউনলোড করতে ২৫-৩০ মিনিট লাগতো। আর অন্য সফটওয়্যার বা মুভিতো চিন্তার বাইরে। সেই-সময় কম্পিউটারের একমাত্র কাজ কোন কিছু কম্পোজ করা। ব্যক্তিগত কম্পিউটার যাদের আছে তারা বেশিরভাগই গেম খেলে আর না হয় সিনেমা দেখে। তাও সব মিলিয়ে এলাকায় ৪-৫জনের হবে হয়তো। আমাদের এলাকায় নতুন একটা কম্পিউটারের দোকান হলো ভিডিও ক্যামেরা ভাড়া দেওয়ার। কিছুদিনের মধ্যে জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। এমন অবস্থা যে শিডিউল পেতে হলে ১৫/২০ দিন আগে অগ্রীম টাকা দিয়ে বুক করে রাখা লাগবে। আমাদের এনজিও-পিকনিক বা অন্যান্য অনুষ্ঠানে হর-হামেশাই ক্যামেরা ভাড়া নেওয়া হতো। সেই সুবাদে দোকানের মালিক/ক্যামেরাম্যান/কম্পিউটার অপারেটর কিরণ ভাইয়ের সাথে পরিচয় হয়। লোকটাকে অনেক অনুরোধ করলাম ভিডিও এডিটিং শেখানোর জন্য। কিন্তু সে এটা-ওটা বলে দিনের পর দিন ঘুরাতে শুরু করল আমাকে। যদিও আমি মতে করতাম, আসলেই সে আমাকে শেখাবে। একবার বলে আজকে না কালকে, কাল না পরশু, সকাল না বিকাল। আমিও তার পিছুপিছু ঘুরতেই থাকলাম । নাছড়বান্দার মতো।  ততদিনে আপুর কম্পিউটার